জটেশ্বর জয় করা হলো না কাওরান বাজার প্রগতি সংঘের

সেমি ফাইনালে দুর্দান্ত ম্যাচ উপহার দিয়ে জলপাইগুড়িকে ২-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নিলেও শেষ পর্যন্ত ভারত জয় করতে পারলো না ঢাকার কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ। ভারতের দোহা জেলার জনপ্রিয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট জিতেশ্বর গোল্ডকাপ নাইট ফুটবল টুর্ণামেন্ট ২০১৯ এর ফাইনালে কলকাতার বর্ধমান ক্লাবের কাছে হেরে টুর্ণামেন্টের রানার্সআপ দল হিসেবেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে ঢাকার ক্লাবটির।

ফাইনাল ম্যাচটি শুরু থেকেই ছিল উত্তেজনায় ভরপুর। ফাইনালিস্ট দুই দল কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ ও বর্ধমান ক্লাবের খেলোয়াড়েরা নিজেদের পায়ের নৈপুণ্যে মুগ্ধ করেছেন শিলিগুড়ির দর্শকদের। একেরপর এক আক্রমন করে ম্যাচটি দারুণ উপভোগ্য করে তোলেছিলেন তারা। তবে বর্ধমান ক্লাবের সুশীলের দুর্দান্ত গোলে লিড নিয়েই প্রথমার্ধ শেষ করে কলকাতার ক্লাবটি।

১-০ গোলে পিছিয়ে দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে উঠে কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ। বর্ধমানের জালে আক্রমণ করেও কোন ফল পাচ্ছিল না ঢাকার ক্লাবটি। অতঃপর কাওরান বাজারের নিয়মিত স্কোরার মহি উদ্দিন রাসেলের অসাধারণ একটি গোলে খেলার সমতায় ফেরায় কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ। এরপর নির্ধারিত সময়ে দুটি দলই আক্রমণ করলেও কেউ কোন স্কোর করতে পারে নি। ফলে, রেফারিদের সিদ্ধান্তে খেলা গড়ায় ট্রাইবেকারে। আর এখানেই যেন কপাল পুড়লো কাওরান বাজার প্রগতি সংঘের। ট্রাইবেকারে ৬-৭ গোলের ব্যবধানে শিরোপা জিতে নেয় কলকাতার বর্ধমান ক্লাব। আর রানার্স আপ দল হিসেবেই টুর্ণামেন্ট শেষ করতে হয় কাওরান বাজার প্রগতি সংঘকে।

ভারত সফরে কাওরান বাজার প্রগতি সংঘের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন খালেদ আহমেদ। ম্যানেজারের দায়িত্বে ছিলেন দুলাল সরদার। অনুপ্রেরণা যোগাতে দলের সাথে ছিলেন ক্লাবের প্রেসিডেন্ট মোশাররফ হোসেনও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here